Breaking

Monday, September 9, 2019

ফরিদপুরে মাছ সিন্ডিকেটের কাছে ধরাশায়ী মাছের রাজা ইলিশ



ফরিদপুর প্রতিনিধি : 
চলছে ইলিশের ভরা মৌসুম, তবু বাড়ছে দাম। প্রায় এক মাস ধরে ফরিদপুরের মাছের বাজার অনেকটাই ইলিশের দখলে। সব বাজারেই মিলছে বড় বড় ইলিশ। ফলে ক্রেতারাও অনেকটা ইলিশের দিকে ঝুঁকছেন। এরপরও কমছে না মাছের দাম। গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে কেজি প্রতি ইলিশের দাম বেড়েছে একশ’ থেকে দুইশ’ টাকা। এক কেজি ওজনের প্রতি পিস ইলিশ মিলছে ১২৩শ’ থেকে ১৩শ’ টাকায়। ক্রেতাদের অভিযোগ, মাছ ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের কারনে ইলিশ মাছ চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে।
জেলার কয়েকটি মাছ বাজার ঘুড়ে দেখা যায়, প্রতিটি বাজরেই রয়েছেই ইলিশের প্রচুর আমদানী তারপরেও বাড়ছে প্রতিনিয়ত দাম। 
ক্রেতারা জানান, বাজারে ইলিশের এতো আমদানী তারপড়েও কেন যে দাম বাড়ানো হচ্ছে বুঝে উঠতে পারছিনা। তারা বলেন হাজী শরীয়তুল্লাহ বাজার থেকে সদর উপজেলাসহ কয়েকটি বাজারের মাছের বাজার নিয়ন্ত্রন হয় বেশীর ভাগ ক্ষেত্রে। এখানে হারান সরকারসহ কয়েকজন ইলিশ মাছ বাজারে আনে। তাদের অতি মুনাফা লোভের কারনেই মাছের বাজারে ইলিশের এতো দাম। তাদের উপর নজরদারী বাড়ানো হলে দাম কমে আসবে বলে তারা জানান। এক্ষেত্রে প্রশাসন ও ভোক্তা অধিকারের এগিয়ে আসার তাগিদ দিয়েছেন ক্রেতারা। 
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাজার ভেদে ১ কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১২০০-১৩০০ টাকা কেজি। ৮০০ গ্রাম থেকে এক কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১০০০-১২০০ টাকা কেজি। ৫০০ গ্রাম থেকে ৬০০ গ্রামের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৫০০-৭০০ টাকা কেজি দরে। ৭০০-৮০০ গ্রামের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৭০০-৯০০ টাকা কেজি দরে। 
গোয়ালচামট এলাকার এক ক্রেতা বলেন, বাজারে গিয়ে যে দিকেই তাকাই শুধু ইলিশ আর ইলিশ দেখি। বড় ছোট সব ধরনের ইলিশ বাজারে ভরপুর। কিন্তু কিনতে যান হাজার টাকার নিচে ভালো ইলিশ পাবেন না। এক হাজার টাকা দিয়ে এক কেজি মাছ কেনা কয়জনের পক্ষে সম্ভব?
ফরিদপুর হাজী শরীয়তুল্লাহ বাজার সমিতির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক নূর মোহম্মদ মাখন বলেন, মাছের আমদানী কমের কারনে মাছের দাম এতো বেশী। সামনে দাম কমে যাবে বলে তিনি জানান। তিনি আরো বলেন, বরিশালের মাছের দাম বেশী। তবে বাজারে বেশী পাওয়া যাচ্ছে চট্রগ্রামের ইলিশ এর দাম একটু কম। বাজারে কোন সিন্ডিকেট নেয় বলে তিনি জানান। 

No comments:

Post a Comment