Breaking

Monday, July 12, 2021

July 12, 2021

ফরিদপুরে জমির সীমানা নিয়ে বিরোধে চাকুরিজীবিকে পিটিয়ে আহত

 


মোঃরিফাত ইসলাম ফরিদপুর থেকে 

ফরিদপুর সদর উপজেলার মাচ্চর ইউনিয়নের জয়দেবপুর গ্রামে চাকুরীজিবি মোঃ নুরুজ্জামান উজ্জল নামের এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে মারাত্বক ভাবে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ এখনো কাউকে আটক করতে পারনি।

স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে বলে এবং অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, চাকুরিজীবি নুরুজ্জামান উজ্জল তার বাড়ীর সীমানায় বেড়া দেয়। এ নিয়ে শনিবার বিকেলে প্রতিবেশী তাজনিহা উজ্জলকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। এর প্রতিবাদ করায় তাজনিহা, শেখ সুমন, ইছহাক শেক, জাহিদ শেখ মিলে উজ্জলকে কাঠের লাঠি, লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাক্ত জখম করে। এসময় উজ্জলের সন্তান সম্ভবা স্ত্রী এগিয়ে আসলে তাকেও লাঞ্ছিত করা হয়। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা চলে যায়। পরবর্তীতে তাজনিহার ছেলের নেতৃত্বে বিভিন্ন স্থান থেকে ২০-২৫জন যুবক এসে উজ্জলের বাড়ীতে হামলার চেষ্টা চালায়। স্থানীয়দের হস্তক্ষেপে তারা চলে যেতে বাধ্য হয়। এ ঘটনায় কোতয়ালী থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়। থানায় অভিযোগ করায় হামলাকারীরা ক্ষিপ্ত হয়ে উজ্জল ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রাননাশের হুমকি দেয়। বর্তমানে উজ্জল ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, তাজনিহার ছেলে বিভিন্ন অপরাধের সাথে যুক্ত। এলাকায় সে নানা সন্ত্রাসীমূলক কর্মকান্ড করে থাকে। এ বিষয়ে বিভিন্ন সময় থানা ও স্থানীয় চেয়ারম্যানকে বিষয় গুলো অভিযোগ আকারে দেওয়া হলেও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বন্ধ হয়নি। এ বিষয়ে অভিযুক্ত তাজনিহা বাড়ীতে না থাকায় তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি। কোতয়ালী থানার ওসি আব্দুল জলিল জানান, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Friday, July 9, 2021

July 09, 2021

দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে অকুতোভয় সৈনিক এর নাম ফয়সাল আহমেদ রবিন

 


মোঃরিফাত ইসলাম ফরিদপুর 

বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশে চলছে এর দ্বিতীয় ঢেউ। প্রথম ঢেউয়ের মতো দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে চলছে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউন।  মহামারীকালীন সময়ে সমাজে বসবাসরত সকল লোক যখন একজন  করোনা রোগীকে এড়িয়ে চলে তখন ফরিদপুর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ চালু করে "কুইক রেসপন্স টিম" 



মহামারী ও লকডাউন এর প্রভাবে কেউ কাজ হারিয়ে পড়েছে খাদ্যসংকটে কেউবা  করোনা রোগী নিয়ে পড়েছে বিপাকে । এই জরুরি মুহূর্তে অক্সিজেন সিলিন্ডার অ্যাম্বুলেন্স ,শিশু খাদ্য সহ বিভিন্ন সংকটে পড়েছে মধ্যবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবার গুলো এমতাবস্থায় সংগঠনটির কুইক রেসপন্স টিম বর্তমানে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা, রুগী ও লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস, সবচেয়ে প্রশংসনীয় করোনায় মৃতদের সৎকার, করোনা আক্রান্ত রুগীর পরিবার কে খাদ্য সহয়তা এবং জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বিভিন্ন সুরক্ষা সামগ্রী মাক্স, হ্যান্ড গ্লাভস , হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন নিয়মিত। 


জেলা আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগ এর সভাপতি শওকত আলি জাহিদ এর নির্দেশনায় ও সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) ফয়সাল আহমেদ রবিনের নেতৃত্বে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কুইক রেসপন্স টিমের সাথে সংশ্লিষ্ট জেলা, থানা ও শহরের সকল নেতৃবৃন্দ ২৪ ঘন্টা মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। রোদ, বৃষ্টি উপেক্ষা করে দিন থেকে গভীর রাত ফোনকল আসা মাত্রই ছুটে যাচ্ছেন অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে দিশেহারা মুমূর্ষপ্রায় করোনা আক্রান্ত্র রোগীর কাছে ৷


একজন উপকারভোগী বলেন আমাদের রবিন যে দূঃর্সাহসিক কার্যক্রম চালাচ্ছে সে জন্য তার জন্য মন প্রান ভরে দোয়া করা ছাডা় আমাদের কিছুই করার নেই , করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর যখন নিকট আত্বীয় কাছে আসতে ভয় পায় তখন রবিন একজন রাজনৈতিক নেতা হয়েও পরম মমতায় অক্সিজেন  লাগিয়ে দিয়ে মাথায় হাত বুলিয়ে অভয় প্রদান করে ৷ ওর এই অবদান আমরা কখনোই ভুলবো না। 


এছারা ফেসবুক ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফয়সাল আহমেদ রবিন ও কুইক রেসপন্স টিমের কার্যক্রম প্রশংসায় ভাসছে, ইতিমধ্যে তাদের এই কার্যক্রম জনগনের চোখে আশার আলো দেখাচ্ছে, রাজনৈতীক নেতাদের প্রতি জনগন আস্থা ফিরে পাচ্ছে। 




এই বিষয়ে জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছেসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) ফয়সাল আহমেদ রবিনের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক ৷ জাতির জনক এদেশের মানুষের জন্য নিজ প্রাণ পর্যন্ত  দিয়েছেন সেখানে আমি তো শুধু নিজের নিরাপত্তা নিয়ে অসহায়ের জন্য কাজ করছি ৷ করোনা প্রাণঘাতি হলেও সচেতনতাই পারে এর বিস্তার কে রুখতে ৷ আমাদের কুইক রেসপন্স টিম সম্পূর্ন  নিরাপত্তা ও সচেতনতার সাথে মানবতার তরে কাজ করে যাচ্ছে ইন শা আল্লাহ যতদিন করোনা থাকবে ততদিন আমি ও আমাদের কুইক রেসপন্স টিম সাধারন মানুষের পাশে আছি।

Thursday, July 8, 2021

July 08, 2021

ফরিদপুর ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে দেড় কেজি গাঁজা ও ৮০ পিস ইয়াবা উদ্ধার

 


ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি।

ফরিদপুর ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে  দেড় কেজি গাঁজা ও ৮০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে  জেলা পুলিশ প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।পুলিশ সুপার, ফরিদপুর মহোদয়ের দিক নির্দেশনায় অফিসার ইনচার্জ, জেলা গোয়েন্দা শাখা, ফরিদপুর এর নেতৃত্বে একটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতয়ালী থানাধীন নর্থ চ্যানেল ইউপি এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে বজলুর রহমান(৩৬) পিতা-মৃত দলুর উদ্দিন শেখ ও জাহাঙ্গীর খাঁ(৩২), পিতা-মোঃ ওমর আলী খাঁ, উভয় সাং-সমসের খার ডাঙ্গী, ইউপি-নর্থ চ্যানেল, থানা-কোতয়ালী, জেলা-ফরিদপুরদ্বয়কে ০৮.০৭.২০২১ খ্রিঃ দিবাগত রাত ২৩.০৫ ঘটিকার সময় গ্রেফতার করা হয়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায় তারা তাদের উপরোক্ত নাম ঠিকানা প্রকাশ করে এবং স্বীকার করে যে, তাদের হেফাজতে মাদক আছে। তাদের দেওয়া স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে বজলুর রহমানের বসত ঘরের শয়ন কক্ষের খাটিয়ার নিচ হতে বাজার করা ব্যাগ (সিমেন্টের খালি প্যাকেট দিয়ে তৈরি) -এর মধ্যে রক্ষিত পুরাতন খবরের কাগজে মোড়ানো ও  স্কচটেপ দ্বারা পেচানো ০৬ টি গাঁজার রোল যার প্রতিটি ২০০ গ্রাম করে মোট ০১ কেজি ২০০ গ্রাম গাঁজা, সাদা পলিথিনে মোড়ানো ৮০ পিস হালকা কমলা রংয়ের ইয়াবা ট্যাবলেট, গাঁজা ও ইয়াবা বিক্রির নগদ ৫২০০/- টাকা ও ০১টি স্যামসাং বাটন মোবাইল ফোন এবং জাহাঙ্গীর এর বসত ঘরের শয়ন কক্ষে খাটের নিচ হতে বাজার করা ব্যাগ (সিমেন্টের খালি প্যাকেট দিয়ে তৈরি) -এর মধ্যে রক্ষিত পুরাতন খবরের কাগজে মোড়ানো স্কচটেপ দ্বারা পেচানো ০৩ টি গাঁজার রোল যার প্রতিটি রোল ১০০ গ্রাম করে মোট ৩০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার পূর্বক জব্দ করা হয়। এ সংক্রান্তে বজলুর বিরুদ্ধে ফরিদপুর কোতয়ালী থানার মামলা নং-২৪, তারিখঃ ০৯.০৭.২০২১ খ্রিঃ, ধারা-মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ এর ৩৬(১) সারণির ১৯(ক)/১০(ক) এবং জাহাঙ্গীর এর বিরুদ্ধে কোতয়ালী থানার মামলা নং ২৫,  তারিখ ০৯.০৭.২০২১ খ্রিঃ, ধারা- মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ২০১৮ এর ৩৬(১) সারণির ১৯( ক) রুজু করা হয়েছে।

July 08, 2021

খাদ্য সামগ্রী নিয়ে মাঠে নেমেছেন ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক


 


মোঃরিফাত ইসলাম,ফরিদপুর 


মহামারী করোনার কারণে সাধারন মানুষ যাতে  খাদ্যের জন্য  কষ্ট না পায় সেজন্য খাদ্য সামগ্রী নিয়ে মাঠে নেমেছেন ছাত্রলীগের সভাপতি তানজিদূল রশিদ চৌধুরী রিয়ান ও সাধারণ সম্পাদক ফাহিম আহমেদ। এসময় তারা একটা মোটরসাইকেল যোগে শহরের বিভিন্ন এলাকায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।

এক প্রতিক্রিয়ায় তারা বলেন সাধারণ মানুষ যেন খাদ্য কষ্ট না পায় সেজন্য তাদের ফোন করলে তাদের বাসায় খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে যাবে।

মহামারী করোনার কারণে তারা বেশ কিছুদিন ধরেই এ ধরনের কার্যক্রম চালাচ্ছেন বলে জানান।

তারা এক মাসের খাদ্য সামগ্রী ও   বিতরণ করবেন বলে জানান।

July 08, 2021

বিরল বন্যপ্রাণী তক্ষক অবমুক্ত করল জেলা পুলিশ

 


মোঃরিফাত ইসলাম,


ফরিদপুর 

বিরল প্রজাতির এক তক্ষক কে অবমুক্ত করল জেলা পুলিশ আজ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায় ‌,

পুলিশ সুপার, ফরিদপুর মহোদয়ের দিক-নির্দেশনায় এসআই (নিঃ) মোঃ কাদের শেখ এর নেতৃত্বাধীন আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশের একটি টিম ০৬/০৭/২০২১ খ্রিঃ দুপুর অনুমান ১৪.২০ ঘটিকার সময় গোপন সূত্রে সংবাদ পান, আলফাডাঙ্গা থানাধীন টগরবন্দ ইউনিয়নের তিতুরকান্দি সাকিনে জনৈক জাহিদ শেখ এর বাড়ীর সামনে পাকা রাস্তার উপর কতিপয় ব্যক্তি বিরল প্রজাতির প্রাণী তক্ষক ক্রয় বিক্রয় করার জন্য অপেক্ষা করছে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে এই টিম অনতিবিলম্বে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি/ব্যক্তিগন তক্ষক রক্ষিত একটি ব্যাগ গাছে ঝুলিয়ে রেখে পালিয়ে যায়। এলাকার লোকজনের উপস্থিতিতে এসআই (নিঃ) মোঃ কাদের শেখ উক্ত ব্যাগটি তক্ষক সহ (লম্বা অনুমান ১৩ ইঞ্চি) উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরবর্তীতে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত ক্রমে আলফাডাঙ্গা উপজেলা বন কর্মকর্তা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান, অফিসার ইনচার্জ, আলফাডাঙ্গা থানা, ফরিদপুর প্রানীটিকে অবমুক্ত করেন। লোক্মুখে প্রাণীটির কথিত মূল্য ১০০,০০,০০,০০০ (একশত কোটি) টাকা।  এ ব্যাপারে আলফাডাঙ্গা থানার সাধারণ ডায়েরী নং- ২৬৪, তারিখঃ ০৮/০৭/২০২১

Sunday, July 4, 2021

July 04, 2021

কামারখালী ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগ

 



মোঃরিফাত ইসলাম , ফরিদপুর

ফরিদপুরের মধুখালি উপজেলার কামারখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদুর রহমান বাবু ও তার ভাতিজা ইমরানের বিরুদ্ধে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।


কামারখালী ইউনিয়নের গড়াই নদীর কোমরপুর ঘাট এলাকা থেকে কয়েকটি ড্রেজারের মাধ্যমে এ বালু উত্তোলন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।  


স্থানীয়রা জানান, এই ঘাট থেকে চেয়ারম্যান বাবু বেশ কিছুদিন ধরে ড্রেজার দিয়ে বালি উত্তোলন করছে। কেউ কিছু বলে না। কিছু বললে বলে উপরের সবাই জানে। তাদের কাজ থেকে অনুমতি নিয়েই আমি বালি উঠাইতেছি।


তারা জানান, এখন বর্ষার মওসুম। এভাবে বালি উঠাইলে নদী পাড়ের ফসলি জমি ভাঙা শুরু করবে। এই ফসলি জমি রক্ষা করতে হলে বালি উঠানো বন্ধ করতে হবে।


এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদুর রহমান বাবুর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, একটা খাদ ভরাট করার জন্য ড্রেজার বসানো হয়েছে। কাজ প্রায় শেষ, আজ চালালেই হবে। আমি ওদের নিষেধ করছি এগুলো করা যাবে না। তবে এ বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যানের কাজ থেকে অনুমতি নিয়ে করছি। কাজটি অবৈধ কি না? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, কাজটি অবৈধ, তবে কাল থেকে আর ড্রেজার চলবে না। 


মধুখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তফা মনোয়ার মুঠোফোনে এই প্রতিবেদককে জানান, গত তিনদিন পুর্বে ওখানে ড্রেজার বন্ধ করা হয়েছিল। আবার শুরু করেছে বিষয়টি জানা নেই। তবে আমি এখনই ব্যবস্থা নিচ্ছি।

July 04, 2021

ফরিদপুরে কানাইপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে বাজারে মাস্ক বিতরণ।

 


মোঃরিফাত ইসলাম,ফরিদপুর
মহামারী করোনার প্রতিরোধে কানাইপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের  উদ্যোগে মাক্স বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত  হয়েছে।

আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রতন সিকদার নিতাইয়ের  নেতৃত্বে  রবিবার সকালে কানাইপুর বাজারে মাস্ক  বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন কানাইপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্য আব্দুল্লাহ  আল মামুন শাহ,ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক লিয়াকত শেখ,  সাংগঠনিক সম্পাদক সহিদুর রহমান, কবির মোল্লা খোকন মৃধা, উত্তম দাস প্রমূখ।
তারা নিজস্ব অর্থায়নে ২ শতাধিক মানুষের মধ্যে মাস্ক  ও লেবু বিতরণ করেন।
এ সময় ছাত্রলীগের কর্মী ও সমর্থক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মহামারী করনার সময় প্রতিদিনই বাজারের  বিভিন্ন স্থানে তাদের এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে বলে তারা জানান।
July 04, 2021

ফরিদপুরে চতুর্থ দিনের লকডাউন এ কর্মসূচি চলছে


 মোঃরিফাত ইসলাম,ফরিদপুরঃ

ফরিদপুরে চতুর্থ দিনের মতো লকডাউন কর্মসূচি চলছে। এ উপলক্ষে জেলা সদরের ভাঙ্গা রাস্তার মোড়, রাজবাড়ী রাস্তার মোড়সহ শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে লকডাউন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক জনাব অতুল সরকার, পুলিশ সুপার জনাব মোঃ আলীমুজ্জামান, সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট কর্নেল জনাব ফারুকসহ বিজিবি, RAB, আনসারসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত বাহিনীর উর্দ্ধতন কর্তাবৃন্দ। 


এর আগে সকালে জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সকল দপ্তরের কর্মকর্তা, সাংবাদিক, স্কাউটস ব্যক্তিত্বের সমন্বয়ে নভেল করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর সংক্রমন প্রতিরোধ এবং প্রাদূর্ভাব মোকাবেলায় সার্বিক পর্যলোচনা সভা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। 


সভায় পুলিশ সুপার জনাব মোঃ আলীমুজ্জামান,  সাংবাদিক প্রবীর কান্তি বালা (পান্না বালা), শেখ মফিজুর রহমান (শিপন), মাহবুব হোসেন পিকুল, এসএম মনিরুজ্জামান, ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজের মেডিকেল অফিসার ডাঃ জুবায়ের, স্কাউট লিডার নাসিম প্রমুখ বক্তব্য প্রদান করেন।

Saturday, July 3, 2021

July 03, 2021

ফরিদপুরে লকডাউনের তৃতীয় দিনে উপজেলা প্রশাসনের কঠোর অভিযান ও জরিমানা আদায়

 


মোঃরিফাত ইসলাম,ফরিদপুর থেকেঃ
ফরিদপুরে লকডাউন নিশ্চিত করতে তৃতীয় দিনে করোনা ভাইরাসজনিত রোগ (কোভিড-১৯) এর বিস্তার রোধকল্পে সার্বিক কার্যাবলী/চলাচলে আরোপিত বিধি নিষেধ প্রতিপালন নিশ্চিত করতে সদর উপজেলা প্রশাসনের অভিযানে বিভিন্ন কারনে তিনজনকে জরিমানা ও আদায় করা হয়েছে।

করোনা ভাইরাসজনিত রোগ (কোভিড-১৯) এর বিস্তার রোধকল্পে সার্বিক কার্যাবলী/চলাচলে আরোপিত বিধি নিষেধ প্রতিপালন নিশ্চিত করতে ৩রা জুলাই ২০২১ শনিবার ফরিদপুর সদর উপজেলার তেতুলতলা, কানাইপুর বাজার, কৃষ্ণনগর, গোবিন্দপুর, কালিতলা, পরানপুর, খলিলপুর, শিবরামপুর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাসুম রেজা।

এ সময় বিজিবি ও আনসার বাহিনীর টিম উপস্থিত থেকে অভিযানে সহযোগিতা করেন।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে বিধি নিষেধ ভঙ্গ করে দোকান খোলা রাখায় এবং মাস্ক পরিধান না করায় ৩ জনকে সর্বমোট ১১০০ (এক হাজার একশত) টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয় এবং করোনা ভাইরাসের সংক্রমন প্রতিরোধে মাস্ক পরিধান ও জারীকৃত বিধি নিষেধ মেনে চলার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে হ্যান্ড মাইকযোগে সকলকে সচেতন করা হয়।

Sunday, June 20, 2021

June 20, 2021

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আয়োজনে মাসব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন

 জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আয়োজনে মাসব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন 



মোঃরিফাত ইসলাম ফরিদপুর  থেকে

আজ ২০ জুন, ২০২১ইং, রবিবার 
সারদা সুন্দরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে 
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা'র নির্দেশে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ-এর সংগ্রামী সভাপতি জননেতা নির্মল রঞ্জন গুহ এবং বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু'র নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ফরিদপুর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ মাসব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ-এর শিশু ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ মেহেদী হাচান লিটু। 
সভাপতিত্ব করেন ফরিদপুর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ-এর সংগ্রামী সভাপতি শওকত আলী জাহিদ এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) ফয়সাল আহম্মেদ রবিন।  

এসময়ে বক্তব্য রাখেন ফরিদপুর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ-এর পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক নাঈম হোসেন রাতুল। 

উপস্থিত ছিলেন ফরিদপুর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি মোঃ ফজলুল করিম, জাহিদুর রহমান, মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম, শেখ শাহিন, শাহিনুজ্জামান বাবর,অলোকেশ রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক জেরিনা ইয়াসমিন বিপা, দপ্তর সম্পাদক সাজিদ হোসেন সোহেল, সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক  আহমেদ সাবিত, সহ স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান। শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের  সাধারণ সম্পাদক  এ,টি,এম জামিল তুহিন, সহ সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম পলাশ,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক  মেহেদি চিশতি, সাংগঠনিক সম্পাদক  জাহাঙ্গীর আলম, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক মোঃ বদরুল করিম, সহ ফরিদপুর জেলা, থানা, শহর ও ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দ।

Saturday, June 12, 2021

June 12, 2021

আলফাডাঙ্গার ধলঝুড়ি গ্রাম পুরুষ শূন্য। ফসলের মাঠ, ব্যবসা সামলাচ্ছেন নারীরা।

 


 মোঃরিফাত ইসলাম।


ফরিদপুরঃ

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গার পাচুড়িয়া ইউনিয়নের ধলজুড়ি গ্রাম এখন পুরুষশূন্য। এ গ্রামের কয়েকশ পুরুষ-যুবক-তরুনেরা গ্রেফতার আতংকে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। গ্রামটি পুরুষ শূন্য হওয়ায় নারীরা কাধে তুলে নিয়েছেন সংসারের হাল। পুরুষশূন্য হওয়ায় গ্রামের নারীরা ভুগছেন চরম নিরাপত্তাহীনতায়। তাছাড়া পুরুষশূন্য হওয়ায় মহিলারা তাদের শিশু সন্তানদের নিয়ে মানবেতর ভাবে দিন কাটাচ্ছে। শুক্রবার সরেজমিন ধলঝুড়ি গ্রাম ঘুরে এমন চিত্র পাওয়া গেছে। গত ৪ জুন স্থানীয় এক যুবকের হাতে দুই পুলিশ হামলার শিকার হওয়ায় মামলায় আসামী করা হয়েছে প্রায় দুইশ জনকে। এদের মধ্যে ৪৪ জনের নামউল্লেখ করা হয়েছে। বাকি আসামীদের অজ্ঞাত হিসাবে দেখানো হয়েছে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, গ্রাম আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পাচুড়িয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান এস এম মিজানুর রহমানের সাথে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী খালিদ মোশাররফ রঞ্জুর বিরোধ চলছে। এ বিরোধের জেরে উভয় গ্রুপের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে দু পক্ষই থানায় মামলা করে। গত শুক্রবার (৪ জুন) একটি মারামারির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বরকত নামের মানসিক এক রোগীকে আটক করে। আটকের পর রবকত পুলিশের উপর কিল ঘুষি মেরে হাতকড়া নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আলফাডাঙ্গা থানার এসআই মঞ্জুর হোসেন ও এএসআই মোঃ জামালউদ্দিন আহত হয়। পরে তাদের স্থানীয় বাজারে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। পুলিশের উপর হামলার ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে এবং ভাইরাল হয়। ভিডিওটিতে দেখা গেছে, বরকতের সাথে দুই পুলিশের ধস্তাধস্তি হচ্ছে। এক পর্যায়ে দুই পুলিশকে কিল ঘুষি মেরে হাতকড়া নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায় বরকত। এ ঘটনার পর পুলিশ বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানসহ ৪৪ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত ১০০-১২০ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করে। মামলায় পুলিশের উপর হামলার অভিযোগ আনা হয়। পুলিশের উপর হামলা ও মামলার পর ধলঝুড়ি গ্রামে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। গ্রামে হানা দিয়ে পুলিশ আটক করে বেশ কয়েকজনকে।

শিলা বেগম নামের এক নারী জানান, আমার স্বামী ঘটনার দিন এলাকায় ছিলেন না, অথচ তাকে আসামী করা হয়েছে। সে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছে। শিশু সন্তান নিয়ে খুব কস্টের মধ্যে আছি। সোনিয়া বেগম নামের আরেক নারী বলেন, গ্রেফতারের ভয়ে পুরুষ মানুষ বাড়ী ছাড়া। রাতের বেলা সন্তানদের নিয়ে ভয়ের মধ্যে থাকি। চুরি-ডাকাতি হতে পারে সেজন্য রাতে ঘুম আসেনা।


মোসাঃ নিলুফা নামের আরেক নারী বলেন, আমার স্বামী ভ্যানে করে আইসক্রিম বিক্রি করে। মারামারির ঘটনা সে জানেই না। তাকে আসামী করা হয়েছে। এখন সে বাড়ী ছাড়া। ছেলে মেয়ে নিয়ে কস্টের মধ্যে আছি। হাতে টাকা নেই। ঘরে খাবারও নেই। দোকানে এসেছি বাকিতে কিছু কিনতে, দোকানী বাকি দিচ্ছেনা। গ্রামের বেশ কয়েকজন নারী জানান, ঘটনার সাথে যারা জড়িত নন তাদেরও আসামী করা হয়েছে। আবার অনেকেই ভয়ে বাড়ীতে থাকছেনা। গ্রামে পুলিশ এলে সবাই পাটখেতে নেমে পড়ি। ধলঝুড়ি গ্রামের বেশ কয়েকটি দোকান সামলাচ্ছেন নারীরা।


এমন একজন নারী জানান, বাড়ীর পুরুষ মানুষ পালিয়ে আছে। দোকান বন্ধ থাকলে কিস্তি দিবো কেমনে, ছেলে-মেয়ে নিয়ে খাবো কি, তাই দোকানে বসেছি। বেড়িরহাট বাজারে এক ব্যবসায়ী জানান, ঘটনার পর গ্রাম পুরুষ শূন্য। আমরা অন্য এলাকার মানুষ এ হাটে ব্যবসা করি। করোনার সময় এমনিতেই ব্যবসা মন্দা। তার উপর হাটে কেউ আসেনা। বড় বিপদে আছি। গ্রাম্য চিকিৎসক এস এম মারুফ হোসেন বলেন, ঘটনার পর আমি দুই পুলিশ সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছি। ঘটনার সাথে যারা জড়িত তার উপযুক্ত বিচার চাই। তবে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে অনেককেই আসামী করা হয়েছে যা কোনভাবেই ঠিক হয়নি। ঘটনার সময় ‘বেড়িরহাট’ বাজারে থাকা কয়েক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, সাদা পোষাকে থাকা দুই পুলিশ সদস্য বরকত নামের এক যুবকের হাতে হাতকড়া পড়ায়। এসময় সে পুলিশকে ঘুষি মারেন। এতে দুই পুলিশ আহত হয়। এছাড়া অন্য কোন ঘটনা ঘটেনি। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গ্রামের নিরিহ মানুষকে আসামী করা হয়েছে। তারা জানান, ঢাকায় থাকা, হাসপাতালে ভর্তি থাকা এবং যারা গ্রামেই ছিলেন না তাদের আসামী করা হয়েছে। তারা জেলার পুলিশ সুপার ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে এক ঘটনার তদন্ত পূর্বক দোষী ব্যক্তির শাস্তি চান।


পাচুড়িয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড মেম্বার মশিউর রহমান বলেন, মানসিক রোগীর সাথে পুলিশের হাতাহাতির ঘটনাকে কেন্দ্র করে গ্রামের শত শত মানুষকে আসামী করাটা সঠিক হয়নি। মামলার পর গ্রেফতার আতংকে গ্রামটি এখন পুরুষ শূন্য। এ ঘটনার সঠিক তদন্তের পাশাপাশি অহেতুক যাকে কোন ভ্যক্তি হয়রানী না হয় সেজন্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন। বরকতের চাচা ফারুক হোসেন বলেন, বরকত একজন মানসিক রোগী। তাকে মানসিক রোগের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ঘটনার দিন সাদা পোষাকে পুলিশ তাকে ধরতে এলে সে তাদের বাঁধা দেয়। পরে পুলিশের সাথে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

পাচুড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এস এম মিজানুর রহমান বলেন, ঘটনার দিন আমি ঢাকায় ছিলাম। এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। আমাকেসহ অনেক কেই আসামী করা হয়েছে। সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে সঠিক ঘটনাটি উদঘাটনের দাবী জানান তিনি।


আলফাডাঙ্গা থানার ওসি জানান, পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় এ পর্যন্ত ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকি আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে। পলাতক থাকার কারনে বাকি আসামীদের আটক করা যাচ্ছে না।